শিরোনাম
ঢাকা-১৮ আসনকে স্মার্ট আসন হিসেবে গড়তে কাজ করে যাচ্ছি: খসরু চৌধুরী এমপি ড.কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরবিক্রম এলডিপির কার্যালয়ে জনগণের উদ্যেশে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন দক্ষিণখানে রিকশাচালকদের মাঝে পানি বিতরণ করলেন খন্দকার সাজ্জাদ তীব্র তাপপ্রবাহে রিকশাচালকদের মাঝে পানি ও স্যালাইন বিতরণ ১০ দিনে তুরাগ থানার পরিবর্তনের ছোঁয়া কালীগঞ্জের নাগরিতে সন্ত্রাসীদের তান্ডব উত্তরায় প্রকৌশলীকে পিটিয়ে হত্যা, মূল হোতা নাজমুল ধরাছোঁয়ার বাইরে উত্তরায় বফেট লঞ্চের শুভ উদ্বোধন উত্তরা ৪৭ নং ওয়ার্ড এ খন্দকার সাজ্জাদ হোসেনের ঈদের নামাজ আদায় উত্তরখানে খসরু চৌধুরী এমপির ঈদ উপহার বিতরণ
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৩:২৪ অপরাহ্ন

ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের আগরতলা প্রেস ক্লাবের নেতারা বাংলাদেশ সফর শেষে দুপুরে আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট সীমান্তপথে দেশে ফিরে গেছেন। রাজ্যের ১৩ সদস্যের সাংবাদিক প্রতিনিধি দলটি মঙ্গলবার সকালে আন্তঃনগর মহানগর প্রভাতি এক্সপ্রেস ট্রেনযোগে আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশনে পৌঁছেন। এ সময় তাদের ফুল দিয়ে অভ্যর্থনা জানান আখাউড়া উপজেলা প্রেস ক্লাব সভাপতি ও যুগান্তর পত্রিকা, যমুনা টেলিভিশনের প্রতিনিধি মহিউদ্দিন মিশু। এ সময় আরটিভি আখাউড়া প্রতিনিধি সাদ্দাম হোসেন উপস্থিত ছিলেন। রাজ্যের ১৩ সদস্যের সাংবাদিক প্রতিনিধি দলটি শনিবার সকালে আখাউড়া ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট সীমান্তপথে জাতীয় প্রেস ক্লাবের আমন্ত্রণে ৪ দিনের সফরে বাংলাদেশে আসেন। সফরকালে দলটি জাতীয় প্রেস ক্লাব ছাড়াও গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিস্থলে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। আগরতলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি জয়ন্ত ভট্টাচার্য, সহ-সভাপতি সৈয়দ সাজ্জাদ আলী, সাধারণ সম্পাদক রমা কান্ত দে, সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রণব সরকার বাংলাদেশ সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা স্বীকার করেন।

রিপোটারের নাম / ২১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, আশা করছি ইসরাইল ও হামাসের মধ্যে আগামী সোমবার নাগাদ যুদ্ধবিরতি শুরু হবে। তবে আমরা চুক্তির কাছাকাছি আছি। এখনও চুক্তির কাজ সম্পন্ন হয়নি।

যুদ্ধবিরতি চুক্তি কবেনাগাদ শুরু হবে এমন প্রশ্নের জবাবে বাইডেন সোমবার এ কথা বলেন।

যুদ্ধবিরতির এ চুক্তিতে হামাসের কাছে আটক বেশকিছু সংখ্যক জিম্মি মুক্তির বিনিময়ে ইসরাইলে থাকা ফিলিস্তিনি বন্দিদের ছেড়ে দেওয়ার কথা রয়েছে।

ইসরাইল ও হামাসের মধ্যে যুদ্ধবিরতির জন্য মিসর, কাতার, যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্সসহ অন্যরা প্রচেষ্টা চালিয়ে আসছে। আলোচনা এখনো চলছে। তারা ছয় সপ্তাহের যুদ্ধবিরতি এবং হামাসের কাছে থাকা ইসরাইলি জিম্মিদের মুক্তি নিয়ে কাজ করছেন। একই সঙ্গে ইসরাইলে আটক শত শত ফিলিস্তিনি বন্দিকেও মুক্তি দেওয়া নিয়ে আলোচনা অব্যাহত রয়েছে।

তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ইসরাইলি কর্মকর্তা আলোচনা ইতিবাচক দিকেই যাচ্ছে বলে আভাস দিয়েছেন।
কিন্তু ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু জোর দিয়ে বলেছেন, যে কোনো যুদ্ধবিরতিই গাজার দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর রাফায় স্থল অভিযানকে বিলম্বিত করবে, কিন্তু প্রতিহত করতে পারবে না। কারণ, হামাসের বিরুদ্ধে পুরো জয়ের জন্যে সেখানে অভিযান চালানো প্রয়োজন।

এদিকে ইসরাইল গত পাঁচ মাস ধরে গাজার সকল শহর এল্কায় অভিযান চালিয়ে আসছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে প্রায় ১৪ লাখ ফিলিস্তিনি এখন রাফায় আশ্রয় নিয়েছে।

নেতানিয়াহুর কার্যালয় থেকে সোমবার বলা হয়েছে, রাফা থেকে বেসামরিক ফিলিস্তিনীদের সরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা ইসরাইলের সামরিক বাহিনী যুদ্ধকালীন কেবিনেটকে দেখিয়েছে।

তবে বাস্তুচ্যুত এসব লোক কোথায় যাবে তা নিয়ে কিছু বলা হয়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ