শিরোনাম
ঢাকা-১৮ আসনকে স্মার্ট আসন হিসেবে গড়তে কাজ করে যাচ্ছি: খসরু চৌধুরী এমপি ড.কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরবিক্রম এলডিপির কার্যালয়ে জনগণের উদ্যেশে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন দক্ষিণখানে রিকশাচালকদের মাঝে পানি বিতরণ করলেন খন্দকার সাজ্জাদ তীব্র তাপপ্রবাহে রিকশাচালকদের মাঝে পানি ও স্যালাইন বিতরণ ১০ দিনে তুরাগ থানার পরিবর্তনের ছোঁয়া কালীগঞ্জের নাগরিতে সন্ত্রাসীদের তান্ডব উত্তরায় প্রকৌশলীকে পিটিয়ে হত্যা, মূল হোতা নাজমুল ধরাছোঁয়ার বাইরে উত্তরায় বফেট লঞ্চের শুভ উদ্বোধন উত্তরা ৪৭ নং ওয়ার্ড এ খন্দকার সাজ্জাদ হোসেনের ঈদের নামাজ আদায় উত্তরখানে খসরু চৌধুরী এমপির ঈদ উপহার বিতরণ
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৮:৩৫ অপরাহ্ন

বাজারে চিনির সংকট হবে না

রিপোটারের নাম / ১৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৫ মার্চ, ২০২৪

কর্ণফুলীর চিনিকলে (এস আলম রিফাইন্ড সুগার ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটিড) লাগা আগুন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রায় নিভে গেছে। বুধবার আগুন পুরোপুরি নেভানো সম্ভব হবে বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স। মঙ্গলবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এস আলম গ্রুপের চেয়ারম্যান বলেছেন, আগুনে প্রায় এক লাখ টন চিনি পুড়ে গেলেও বাজারে কোনো সংকট হবে না।

এস আলম গ্রুপের ব্যবস্থাপক (এইচআর) এমএ হোসাইন রানা যুগান্তরকে বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এস আলম গ্রুপের চেয়ারম্যান সাইফুল আলম বলেছেন, ‘আগুনে প্রায় এক লাখ টন চিনি পুড়ে গেলেও বাজারে কোনো সংকট হবে না। চিনির দামেও এর প্রভাব পড়বে না। কারণ, প্রচুর পরিশোধিত চিনি মজুত রয়েছে। যে পরিমাণ চিনি মজুত রয়েছে তাতে  টানা ১০-১২ দিন সরবরাহ করা সম্ভব। এছাড়া রমজানে যে পরিমাণ চিনির চাহিদা রয়েছে, এর চেয়ে বেশি মজুত আছে দেশে।’ এদিকে এস আলম গ্রুপের মহাব্যবস্থাপক আখতার হাসান গণমাধ্যমকে বলেন, আগুন পুরোপুরি নিভে গেলে দু-একদিনের মধ্যেই ইউনিট আবারও উৎপাদনে যাবে।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স চট্টগ্রামের সহকারী পরিচালক আবদুল মালেক যুগান্তরকে বলেন, চিনিকলের আগুন প্রায় নিভে এসেছে। আগুন ছড়ানোর আর কোনো আশঙ্কা নেই। ২৫ হাজার বর্গফুট আয়তনের বিশাল গুদামের ১০টি পয়েন্ট দিয়ে আমরা পানি ছিটিয়েছি। আগুনের ভয়াবহতা এত বেশি ছিল যে, পানি দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা বাষ্প হয়ে উড়ে যাচ্ছিল। আগুনে অপরিশোধিত চিনি গলে ছড়িয়ে পড়েছে। তিনি আরও বলেন, গুদামটির পাশে বড় আকারের আরও গুদাম রয়েছে। আমরা চেষ্টা করেছি সেদিকে যেন আগুন ছড়াতে না পারে। কারখানার মূল প্লান্টও আগুনের হাত থেকে রক্ষা করা হয়েছে। আগুন নেভাতে এখন ফোম ছিটানো হচ্ছে। আগুন পুরোপুরি না নেভানো পর্যন্ত অগ্নিকাণ্ডের কারণ জানা সম্ভব নয়।

ফায়ার সার্ভিস চট্টগ্রামের উপসহকারী পরিচালক আবদুর রাজ্জাক যুগান্তরকে বলেন, সোমবার রাত ১১টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে এলেও তা পুরোপুরি নেভেনি। রাতভর ১৩টি ইউনিট কাজ করেছে। রিমোট কন্ট্রোলচালিত মেশিন ব্যবহার করে প্রতি মিনিটে ৩ হাজার লিটার পানি ছিটানো হয়েছে। দুপুরের দিকে আগুনের তীব্রতা কিছুটা কমে আসে। তিনি আরও বলেন, অপরিশোধিত চিনি ভেতরে ভেতরে জ্বলছে। ওপরে টিন থাকায় ভেতরে পানি প্রবেশ করানো কষ্টকর হয়ে পড়ে। ক্রেন দিয়ে টিন সরানো হলে একদিনের মধ্যেই আগুন পুরোপুরি নেভানো সম্ভব হবে। আগুন নিয়ন্ত্রণে সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর সদস্যরাও ফায়ার সার্ভিসের সঙ্গে কাজ করেন।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনে জেলা প্রশাসনের ৯ সদস্যের তদন্ত দল : কর্ণফুলী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি জানান, মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে জেলা প্রশাসনের ৯ সদস্যের তদন্ত দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রহমানের নেতৃত্বে তদন্তদল ঘটনাস্থল চরপাথরঘাটার ইছানগরের গ্রামের বাংলাবাজার ঘাট পরিদর্শন করে। কমিটিকে সাত কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ