শিরোনাম
ঢাকা-১৮ আসনকে স্মার্ট আসন হিসেবে গড়তে কাজ করে যাচ্ছি: খসরু চৌধুরী এমপি ড.কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরবিক্রম এলডিপির কার্যালয়ে জনগণের উদ্যেশে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন দক্ষিণখানে রিকশাচালকদের মাঝে পানি বিতরণ করলেন খন্দকার সাজ্জাদ তীব্র তাপপ্রবাহে রিকশাচালকদের মাঝে পানি ও স্যালাইন বিতরণ ১০ দিনে তুরাগ থানার পরিবর্তনের ছোঁয়া কালীগঞ্জের নাগরিতে সন্ত্রাসীদের তান্ডব উত্তরায় প্রকৌশলীকে পিটিয়ে হত্যা, মূল হোতা নাজমুল ধরাছোঁয়ার বাইরে উত্তরায় বফেট লঞ্চের শুভ উদ্বোধন উত্তরা ৪৭ নং ওয়ার্ড এ খন্দকার সাজ্জাদ হোসেনের ঈদের নামাজ আদায় উত্তরখানে খসরু চৌধুরী এমপির ঈদ উপহার বিতরণ
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ১০:০০ অপরাহ্ন

প্রতি স্টপেজের ভাড়া পাঁচ টাকা কমানোর নির্দেশ মেয়র আতিকের

রিপোটারের নাম / ২৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

গুলশান বনানী বারিধারা নিকেতন এলাকায় চলাচলকারী ‘ঢাকা চাকা’ ও ‘গুলশান চাকা’র ভাড়া প্রতিটি স্টপেজে পাঁচ (৫) টাকা কমানোর নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। এ নির্দেশনা আগামীকাল ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে গুলশান নগর ভবনে ডিএনসিসি মেয়রের সম্মেলন কক্ষে গুলশান-বনানী-বারিধারা-নিকেতন এলাকায় চলাচলকারী কমিউনিটি বাসসেবা নাগরিকবান্ধব করা বিষয়ক এক সভায় এ নির্দেশ দিয়েছেন মেয়র আতিকুল ইসলাম।

সভায় ঢাকা চাকা ও গুলশান চাকার প্রতিনিধিসহ ডিএমপির (ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ), গুলশান সোসাইটি, বনানী সোসাইটি ও বারিধারা সোসাইটির প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, নিয়ম না মেনে চাইলেই ভাড়া বাড়িয়ে দেওয়া যাবে না। নির্দিষ্ট প্রক্রিয়া অনুসরণ করেই ভাড়া সমন্বয় করতে হবে। যাত্রীদের কেমন সেবা দেওয়া হচ্ছে সেটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। ভাড়া অনুযায়ী যাত্রীদের সেবার মান নিশ্চিত করেই বাস চালাতে হবে।

মেয়র আরও বলেন, যে শর্তে ঢাকা চাকা ও গুলশান চাকা বাসা সার্ভিস চালু করা হয়েছিল সেই শর্তগুলো মেনে চলতে হবে। প্রতিটি গাড়িতে সিসি ক্যামেরা থাকবে, কার্যকরী ও সচল এসি থাকবে। বাসের পরিবেশ নোংরা থাকা যাবে না। আরামদায়ক সিটি থাকতে হবে। এসব কিছু তদারকি করার জন্য এবং একটি স্মার্ট, আধুনিক, গণবান্ধব, মানসম্মত বাস সার্ভিস নিশ্চিত করতে ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাকে আহবায়ক করে একটি কমিটি গঠন করে দেওয়া হবে। কমিটিতে সোসাইটির প্রতিনিধি, ট্রাফিক বিভাগের প্রতিনিধি, পরিবহণ কোম্পানির প্রতিনিধি অন্তর্ভুক্ত থাকবে। এই কমিটি সার্বিক বিষয়ে প্রত্যেক মাসে একবার সভা করবে।

পরিবহণ কোম্পানির প্রতিনিধির এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র বলেন, বাসা চলাচল ও বাসা পার্কিং করার বিষয়ে ডিএনসিসি সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করবে। তবে যাত্রীদের সেবার মান নিশ্চিত করার বিষয়ে সর্বোচ্চ গুরুত্ব প্রদান করতে হবে৷ টিকিট কাউন্টার থেকে সৃষ্ট বর্জ্য নিয়মিত অপসারণ করে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করতে হবে।

সভায় অন্যদের সঙ্গে আরও উপস্থিত ছিলেন- ডিএনসিসির সচিব মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক, সম্পত্তি কর্মকর্তা ড. মোহাম্মদ মাহে আলম, মহাব্যবস্থাপক (পরিবহণ) সালমা আক্তার খুকী প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ