শিরোনাম
ঢাকা-১৮ আসনকে স্মার্ট আসন হিসেবে গড়তে কাজ করে যাচ্ছি: খসরু চৌধুরী এমপি ড.কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরবিক্রম এলডিপির কার্যালয়ে জনগণের উদ্যেশে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন দক্ষিণখানে রিকশাচালকদের মাঝে পানি বিতরণ করলেন খন্দকার সাজ্জাদ তীব্র তাপপ্রবাহে রিকশাচালকদের মাঝে পানি ও স্যালাইন বিতরণ ১০ দিনে তুরাগ থানার পরিবর্তনের ছোঁয়া কালীগঞ্জের নাগরিতে সন্ত্রাসীদের তান্ডব উত্তরায় প্রকৌশলীকে পিটিয়ে হত্যা, মূল হোতা নাজমুল ধরাছোঁয়ার বাইরে উত্তরায় বফেট লঞ্চের শুভ উদ্বোধন উত্তরা ৪৭ নং ওয়ার্ড এ খন্দকার সাজ্জাদ হোসেনের ঈদের নামাজ আদায় উত্তরখানে খসরু চৌধুরী এমপির ঈদ উপহার বিতরণ
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১২:২৫ পূর্বাহ্ন

‘নির্বাচনের পর বিয়ে করলে জেলে যেতে হবে’

রিপোটারের নাম / ১৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : রবিবার, ৩১ মার্চ, ২০২৪

আর কয়েকদিন পর ভারতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে জাতীয় নির্বাচন। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের এই তোড়জোড়ের মধ্যেই নানা বাগ্‌বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ছেন প্রার্থীরা। সম্প্রতি আসামের মুসলিম নেতা বদরুদ্দীন আজমলকে বিয়ে নিয়ে কটাক্ষ করেছেন বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা।

ভারতে প্রস্তাবিত ইউনিফর্ম সিভিল কোড বা অভিন্ন পারিবারিক আইনের প্রসঙ্গ তুলে তিনি বলেছেন, ধুবরির সাংসদ (আজমল) যদি আবার বিয়ে করতে চান, তবে তা নির্বাচনের আগেই সেরে ফেলা উচিত, না হলে তাকে গ্রেফতার হতে হবে।

শর্মাকে উদ্ধৃত করে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লোকসভা নির্বাচনের পরে রাজ্যে ইউনিফর্ম সিভিল কোড প্রয়োগ করা হবে এবং বহুবিবাহ অবৈধ হয়ে যাবে।

সর্বভারতীয় সংযুক্ত গণতান্ত্ৰিক মোৰ্চার (এআইডিএফ) প্রধান আজমল এবারও লোকসভা নির্বাচনে ধুবরি আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। সম্প্রতি তিনি বলেন, কংগ্রেসের মানুষ আর রাকিবুল হোসেইন (ওই আসনে তার কংগ্রেস প্রতিদ্বন্দ্বী) বলেছেন, আমার বয়স হয়ে গেছে। তবে এখনো আমার মধ্যে আবারও বিয়ে করার মতো জোর আছে। মুখ্যমন্ত্রী না চাইলেও আমি তা করতে পারব।

এর জবাবে শনিবার এক নির্বাচনী সমাবেশে আসামের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, তার (আজমলের) এখনই বিয়ে করা উচিত। নির্বাচনের পর আসামে ইউনিফর্ম সিভিল কোড (ইউসিসি) চালু করা হবে। এর পরে বিয়ে করলে তাকে গ্রেফতার করা হবে।

তিনি আরও বলেন, যদি তিনি এখন আমাদের আমন্ত্রণ জানান, আমরাও যাব। কারণ এটি এখন পর্যন্ত অবৈধ নয়। আমি যত দূর জানি, ওনার একজন স্ত্রী আছেন। তিনি আরও দুই-তিন বিয়ে করতে পারবেন। তবে নির্বাচনের পরপরই আমরা বহুবিবাহ বন্ধ করে দেব। সম্পূর্ণ খসড়া তৈরি আছে।

ধর্ম-বর্ণনির্বিশেষে বিয়ে, বিচ্ছেদ, উত্তরাধিকার ও দত্তক নেওয়ার বিষয়ে অভিন্ন বিধিমালার নাম ইউনিফর্ম সিভিল কোড। এটি পাস হলে ভারতীয় নাগরিকদের সবার জন্য সমানভাবে প্রযোজ্য হবে।

ইউসিসি আইন কার্যকর করার ওপর বরাবরই জোর দিয়ে আসছিলেন শর্মা। গত মাসে উত্তরাখণ্ড বিধানসভায় ইউসিসি বিল পাস হওয়ার পরে তার মন্তব্য আরও জোরালো হয়ে ওঠে।

লোকসভা নির্বাচনে আসামে তিন ধাপে ভোট গ্রহণ চলবে—১৯ এপ্রিল, ২৬ এপ্রিল ও ৭ মে। আগামী ৪ জুন ফলাফল ঘোষণা করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ