শিরোনাম
ঢাকা-১৮ আসনকে স্মার্ট আসন হিসেবে গড়তে কাজ করে যাচ্ছি: খসরু চৌধুরী এমপি ড.কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরবিক্রম এলডিপির কার্যালয়ে জনগণের উদ্যেশে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন দক্ষিণখানে রিকশাচালকদের মাঝে পানি বিতরণ করলেন খন্দকার সাজ্জাদ তীব্র তাপপ্রবাহে রিকশাচালকদের মাঝে পানি ও স্যালাইন বিতরণ ১০ দিনে তুরাগ থানার পরিবর্তনের ছোঁয়া কালীগঞ্জের নাগরিতে সন্ত্রাসীদের তান্ডব উত্তরায় প্রকৌশলীকে পিটিয়ে হত্যা, মূল হোতা নাজমুল ধরাছোঁয়ার বাইরে উত্তরায় বফেট লঞ্চের শুভ উদ্বোধন উত্তরা ৪৭ নং ওয়ার্ড এ খন্দকার সাজ্জাদ হোসেনের ঈদের নামাজ আদায় উত্তরখানে খসরু চৌধুরী এমপির ঈদ উপহার বিতরণ
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১২:১০ পূর্বাহ্ন

দয়াল কুমার বড়ুয়ার হাত ঘড়ি সাথে লড়াই হবে ট্রাক ও লাঙ্গল প্রতীকের

তরিক শিবলী / ১৬২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ৩০ ডিসেম্বর, ২০২৩

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজধানীর উত্তরা তথা ঢাকা ১৮ আসনে এবার হবে তুমুল লড়াই। সবদিক বিবেচনা করে এই আসনে ভোটযুদ্ধ ঘুরেফিরে আসছে একটি নাম যা হাত ঘড়ি মার্কা দয়াল কুমার বড়ুয়ার। বর্তমান এম.পি মনোনয়ন দৌড়ের টিকতে না পেরে আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনগুলো যে যার মত করে বিভক্ত হয়ে গেছে। যার ফলে বেশ বেকাদায় পড়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী গন।তবে সাধারণ মানুষ গতানুগতিক রাজনৈতিক ধারা থেকে বের হতে চাচ্ছেন।

তাই দয়াল কুমার বড়ুয়া এখন ঢাকা ১৮ আসনের মানুষের কাছে একটি আস্থার নাম। তিনি উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত একজন ব্যবসায়ী ও আদিব গ্রুপের চেয়ারম্যান।। যার ফলে ব্যবসায়ী সমাজে বিশাল প্রভাব কাজকরছে তাকে ঘিরে।

১৮ আসনের এক ভোটার রতন দাস ব্যাংক কর্মকর্তা বলেন, দয়াল দাদা কে নিয়ে আমাদের ভাবনার কিছু নেই। তিনি শিক্ষিত ও সুজন বহুদিন ধরেই তাকে উত্তরায় আমরা দেখছি তিনি একজন মানবিক মানুষ তাই আমাদের আস্থা ওনার উপর।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উত্তরার এক বাসিন্দা বলেন। এবারের ভোট যেন বাঘে মহিষের যুদ্ধ হবে। যদি নির্বাচন কমিশন একটি স্বচ্ছ নির্বাচন সাধারণ মানুষকে উপহার দেন তবে দয়াল কুমারের হাত ঘড়ির সাথে লড়াই হবে ট্রাক ও লাঙ্গলের।

সাধারণ মানুষের মতে ঢাকা ১৮ আসনের সংখ্যালঘু ভোট প্রায় সবই দয়াল কুমার বড়ুয়ার দখলে। অন্য প্রার্থীরা তা নেওয়ার বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করলেও কতটুকু কার্যকর হবে তা ভোটের মাধ্যমেই প্রমাণ হবে। সাধারণ মানুষ পরিবর্তন চায় তাই হাত ঘড়ি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের দিকেই মানুষ ছুটছে।

তবে দয়াল কুমার বড়ুয়ার কাছে নির্বাচন নিয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন,আমার চাওয়া পাওয়ার কিছু নেই আমি সাধারন মানুষের মাঝে বেঁচে থাকতে চাই। এবং একটি স্মার্ট উত্তরা তৈরি করতে চাই। আমার ১৮ আসনের উত্তরখান ও দক্ষিনখান এলাকার অবস্থা দেখলে মনে হয় ৫০ বছর পিছিয়ে আছি। এটি এমন এলাকা শীতের মধ্যেও জলাবদ্ধ অবস্থায় আছে। আমি পুরো উত্তরা কে একটি আধুনিক ও স্মার্ট নগর হিসাবে গড়ে তুলতে চাই। নিজের কর্ম দ্বারা সাধারন মানুষের মনিকোঠায় অবস্থান করতে চাই।

এদিকে তোফাজ্জলের ট্রাক এবং শেরীফার লাঙ্গল এর সাথে দয়াল কুমারের হাত ঘড়ি হাড্ডা-হাড্ডি লড়াই হবে বলে সাধারন মানুষ ধারণা করছে ।

উত্তরা ১৮ আসনের মোট ভোটারের সংখ্যা ৫৮৮৬৪০ জন , এর মধ্যে পুরুষ ভোটারের সংখ্যা ৩১৯৯০০ জন, নারী ভোটারের সংখ্যা ২৮৬৬৯৩ লক্ষ জন এবং হিজড়া ভোটারের সংখ্যা ছয় জন।

এদিকে প্রার্থীরা ভোটারকে ভোটকেন্দ্র আনার বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করছে। তাই ভোটকেন্দ্রে ভোটার সমাগম ব্যাপক হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ