শিরোনাম
ঢাকা-১৮ আসনকে স্মার্ট আসন হিসেবে গড়তে কাজ করে যাচ্ছি: খসরু চৌধুরী এমপি ড.কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরবিক্রম এলডিপির কার্যালয়ে জনগণের উদ্যেশে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন দক্ষিণখানে রিকশাচালকদের মাঝে পানি বিতরণ করলেন খন্দকার সাজ্জাদ তীব্র তাপপ্রবাহে রিকশাচালকদের মাঝে পানি ও স্যালাইন বিতরণ ১০ দিনে তুরাগ থানার পরিবর্তনের ছোঁয়া কালীগঞ্জের নাগরিতে সন্ত্রাসীদের তান্ডব উত্তরায় প্রকৌশলীকে পিটিয়ে হত্যা, মূল হোতা নাজমুল ধরাছোঁয়ার বাইরে উত্তরায় বফেট লঞ্চের শুভ উদ্বোধন উত্তরা ৪৭ নং ওয়ার্ড এ খন্দকার সাজ্জাদ হোসেনের ঈদের নামাজ আদায় উত্তরখানে খসরু চৌধুরী এমপির ঈদ উপহার বিতরণ
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ১০:৩০ অপরাহ্ন

ট্রাম্প-বাইডেনের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের ইঙ্গিত

রিপোটারের নাম / ১৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৮ মার্চ, ২০২৪

নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের প্রাইমারি ও ককাসের বাধা পেরিয়ে রিপাবলিকান ও ডেমোক্রেটিক পার্টির মনোনয়ন নিশ্চিত করেছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এবারের নির্বাচনে দ্বিতীয়বারের মতো তারা পরস্পরের মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন। এ নির্বাচন নিয়ে ইতোমধ্যেই নানামুখী প্রচারণার পাশাপাশি শুরু হয়েছে জরিপ। এতে দুই প্রার্থীর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। খবর রয়টার্স, দ্য ইকোনমিস্টের।

ব্রিটেনের সাময়িকী দ্য ইকোনমিস্টের জরিপে দেখা গেছে, বাইডেন-ট্রাম্প দুজনই সমান ৪৫ শতাংশ সমর্থন পেয়েছেন। জরিপে অংশ নেওয়া ভোটারদের ১০ শতাংশ এই দুজনের কাউকে ভোট দেবেন না বলে জানিয়েছেন।

এ জরিপ থেকে দেখা গেছে, গত সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময় থেকে হঠাৎ বাইডেনের জনপ্রিয়তা কমতে শুরু করে। অন্যদিকে ট্রাম্পের জনপ্রিয়তা বাড়তে থাকে। ১৩ সেপ্টেম্বর ৪৪ পয়েন্ট নিয়ে ট্রাম্প ও বাইডেন সমান অবস্থানে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এরপর জানুয়ারির শেষদিকে ৪৫ পয়েন্ট নিয়ে ট্রাম্প যখন এগিয়ে যান, বাইডেন তখন ৪২ পয়েন্টে আটকে ছিলেন। পরে অবশ্য বাইডেনের জনপ্রিয়তা কিছুটা বেড়েছে।

আবার রয়টার্সের জরিপে দেখা গেছে, ট্রাম্পের তুলনায় মাত্র ১ পয়েন্ট ব্যবধানে এগিয়ে আছেন বাইডেন। প্রায় এক সপ্তাহ ধরে পরিচালিত জরিপ বুধবার শেষ হয়েছে। জরিপে অংশ নেওয়া ভোটারদের ৩৯ শতাংশ ডেমোক্র্যাট প্রার্থী বাইডেনকে সমর্থন করেছেন। অন্যদিকে ট্রাম্প পেয়েছেন ৩৮ শতাংশের সমর্থন।

তাদের মধ্যে অনেক অংশগ্রহণকারী দুজনের কাউকেই সমর্থন জানাননি। ১১ শতাংশ ভোটার জানিয়েছেন, তারা তৃতীয় কোনো প্রার্থীকে ভোট দেবেন। ৫ শতাংশ অংশগ্রহণকারী প্রার্থী বাছাই থেকে বিরত ছিলেন। এছাড়া বাকি ৭ শতাংশ ভোটার কী জবাব দেবেন তা জানেন না বলে জানিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে গত ৭০ বছরের মধ্যে এবারই প্রথম নির্বাচনি লড়াইয়ে মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন বর্তমান ও সাবেক প্রেসিডেন্ট। তাদের নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়টি মোটামুটি চ‚ড়ান্ত হয়েছে। এখন কেবল পার্টির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার অপেক্ষা। এদিকে এবার নির্বাচনে ভোটাররা বাইডেনের বয়স এবং ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মামলার মতো বিষয় দুটিকে গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ