শিরোনাম
ঢাকা-১৮ আসনকে স্মার্ট আসন হিসেবে গড়তে কাজ করে যাচ্ছি: খসরু চৌধুরী এমপি ড.কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরবিক্রম এলডিপির কার্যালয়ে জনগণের উদ্যেশে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন দক্ষিণখানে রিকশাচালকদের মাঝে পানি বিতরণ করলেন খন্দকার সাজ্জাদ তীব্র তাপপ্রবাহে রিকশাচালকদের মাঝে পানি ও স্যালাইন বিতরণ ১০ দিনে তুরাগ থানার পরিবর্তনের ছোঁয়া কালীগঞ্জের নাগরিতে সন্ত্রাসীদের তান্ডব উত্তরায় প্রকৌশলীকে পিটিয়ে হত্যা, মূল হোতা নাজমুল ধরাছোঁয়ার বাইরে উত্তরায় বফেট লঞ্চের শুভ উদ্বোধন উত্তরা ৪৭ নং ওয়ার্ড এ খন্দকার সাজ্জাদ হোসেনের ঈদের নামাজ আদায় উত্তরখানে খসরু চৌধুরী এমপির ঈদ উপহার বিতরণ
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০২:৫৭ অপরাহ্ন

জেলখানায় মৃত্যুবরণকারী নেতার পরিবারের পাশে বিএনপি নেতা

রিপোটারের নাম / ১৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

শ্রীপুরে নির্বাচনকালীন কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে মৃত কারাবন্দি বিএনপির নেতা আসাদুজ্জামান হিরা খানের বাড়িতে এসে তার পরিবারের সদস্যদের খোঁজখবর নিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সুপ্রিমকোর্ট বারের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে আন্দোলনের সময় গ্রেফতার হওয়া উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড বিএনপি সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান হিরা খান (৪৫) ওই ইউনিয়নের মৃত গিয়াসউদ্দিন খানের ছেলে। তিনি গত বছরের ২৮ অক্টোবর পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়ে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২-এ বন্দি থাকাবস্থায় গত ১ ডিসেম্বর মৃত্যুবরণ করেন।

সোমবার বিকালে তার বাড়িতে পরিবারের খোঁজখবর নিতে গিয়ে অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদীন বলেন, আপনারা জানেন গত ২৮ অক্টোবর বিএনপির একটি গণসমাবেশ ছিল। সেদিন বর্তমান শাসকদল বিএনপিকে ধ্বংসের নীলনকশা করে। সারা বাংলাদেশে লাখ লাখ মানুষকে মিথ্যা মামলা দেয়। হাজার হাজার মানুষকে হয়রানিমূলক মামলা দিয়ে জেলে ঢুকিয়েছে।

জয়নাল আবেদীন আরও বলেন, এ সরকার যাদের অন্যায়ভাবে জেলে ঢুকিয়েছে, মানবিক কারণে তাদের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা ছিল তাদের দায়িত্ব। কিন্তু তারা তা না করে, মানবতায় বিশ্বাস করে না বলেই শাসক দল তাদের দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়ে সুস্থ মানুষগুলোকে অসুস্থ বানিয়ে অমানবিকভাবে জেলখানায় মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছে। তারা গত ৭ জানুয়ারি ডামি নামে একটি ভুয়া নির্বাচন করেছে। একতরফা নির্বাচন করেছে। যে নির্বাচনকে বাংলাদেশের মানুষ কোনো অবস্থাতেই মেনে নেয়নি।

তিনি বলেন, এ আন্দোলনকে কেন্দ্র করে যারা জেলখানায় মৃত্যুবরণ করেছে, তাদের পরিবারের খোঁজখবর রাখার দায়িত্ব হচ্ছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের। কেননা তারা এদেশের মানুষের জন্য, এ দেশের গণতন্ত্র রক্ষার জন্য আন্দোলন করার কারণে তাদের গ্রেফতার করে জেলে ঢুকিয়ে বন্দি করে হত্যা করা হয়েছে। এ হত্যার প্রতিবাদে আমাদের নেতা তারেক রহমান নির্দেশ দিয়েছেন আমরা তাদের বাড়িতে গিয়ে তাদের পরিবারের সদস্যদের যেন খোঁজখবর রাখি। তারই অংশ হিসেবে আমাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে গাজীপুর অঞ্চলের।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক ডা. রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, গাজীপুর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শাহ রিয়াজুল হান্নান, কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য ওমর ফারুক সাফিন, উপজেলা বিএনপির সভাপতি শাহজাহান ফকির, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ডা. মো. শফিকুল ইমলাম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান খান টিটু, উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আক্তারুল আলম মাস্টার প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ