শিরোনাম
ঢাকা-১৮ আসনকে স্মার্ট আসন হিসেবে গড়তে কাজ করে যাচ্ছি: খসরু চৌধুরী এমপি ড.কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরবিক্রম এলডিপির কার্যালয়ে জনগণের উদ্যেশে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন দক্ষিণখানে রিকশাচালকদের মাঝে পানি বিতরণ করলেন খন্দকার সাজ্জাদ তীব্র তাপপ্রবাহে রিকশাচালকদের মাঝে পানি ও স্যালাইন বিতরণ ১০ দিনে তুরাগ থানার পরিবর্তনের ছোঁয়া কালীগঞ্জের নাগরিতে সন্ত্রাসীদের তান্ডব উত্তরায় প্রকৌশলীকে পিটিয়ে হত্যা, মূল হোতা নাজমুল ধরাছোঁয়ার বাইরে উত্তরায় বফেট লঞ্চের শুভ উদ্বোধন উত্তরা ৪৭ নং ওয়ার্ড এ খন্দকার সাজ্জাদ হোসেনের ঈদের নামাজ আদায় উত্তরখানে খসরু চৌধুরী এমপির ঈদ উপহার বিতরণ
রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১:৩৫ পূর্বাহ্ন

কেন ইসরাইলের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের মামলা

রিপোটারের নাম / ২২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

ফিলিস্তিন ভুখণ্ডে ইসরাইলের ৫৭ বছরের দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালতে (আইসিজে) ঐতিহাসিক শুনানি শুরু হয়েছে। সোমবার নেদারল্যান্ডসের দ্য হেগে আদালতটির ১৫ বিচারপতি প্যানেলের সব সদসের উপস্থিতিতে এ শুনানি শুরু হয়। টানা ছয় দিন শুনানির দিন নির্ধারণ করা হয়েছে।

ইসরাইলের বিরুদ্ধে কে মামলা করেছে?

২০২২ সালের ৩০ ডিসেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের (ইউএনজিএ) একটি অনুরোধের মাধ্যমে মামলাটি শুরু হয়েছিল। যখন বেশির ভাগ সদস্য গাজায় ইসরাইলি দখলদারিত্বের আইনি পরিণতি সম্পর্কে আদালতে ভোট দিয়েছিলেন। আরব দেশ, রাশিয়া এবং চীন এই পদক্ষেপের পক্ষে ভোট দিয়েছে।

তবে ইসরাইল, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি এবং ২৪টি দেশ এর বিপক্ষে ভোট দিয়েছিল। দীর্ঘকাল ধরে ইসরাইলের দখলদারিত্বের অবসান ঘটাতে এ মামলা করা হয়।

কোন দেশ অংশগ্রহণ করবে?

ইসরাইলের বিরুদ্ধে অভিযোগের এ মামলায় ৫২টি দেশ ও তিনটি সংস্থা তাদের যুক্তি উপস্থাপন করবে। দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে ফিলিস্তিন, বাংলাদেশ, দক্ষিণ আফ্রিকা, আলজেরিয়া, সৌদি আরব, নেদারল্যান্ডস, বেলজিয়াম, বেলিজ, বলিভিয়া, ব্রাজিল, কানাডা, চিলি, কলম্বিয়া, কমোরোস, কিউবা, মিসর, সংযুক্ত আরব আমিরাত, যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, ফ্রান্স, গাম্বিয়া, গায়ানা, হাঙ্গেরি, চীন, ইরান, ইরাক, আয়ারল্যান্ড, জাপান, জর্ডান, কুয়েত, লেবানন, লিবিয়া, লুক্সেমবার্গ, মালয়েশিয়া, মরিশাস, নামিবিয়া, নরওয়ে, ওমান, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, কাতার, যুক্তরাজ্য, স্লোভেনিয়া, সুদান, সুইজারল্যান্ড, সিরিয়া, তিউনিসিয়া, তুরস্ক, জাম্বিয়া, স্পেন, ফিজি ও মালদ্বীপ।

এর মধ্যে মঙ্গলবার বাংলাদেশের শুনানি শেষ হয়েছে। এদিন দক্ষিণ আফ্রিকা, আলজেরিয়া, সৌদি আরব, নেদারল্যান্ডস, ও বেলজিয়ামও ফিলিস্তিনের পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করেছে। সোমবার শুনানিতে অংশ নিয়ে অবিলম্বে ইসরাইলি দখলদারিত্বের অবসানের দাবি জানিয়েছে ফিলিস্তিন। এ দেশগুলো ছাড়াও আরব লিগ, ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা (ওআইসি) ও আফ্রিকান ইউনিয়ন যুক্তি উপস্থাপন করবে।

দক্ষিণ আফ্রিকার মামলা থেকে কতটা ভিন্ন?

ইসরাইলের বিরুদ্ধে আইসিজেতে দক্ষিণ আফ্রিকার করা মামলার থেকে এ মামলাটি একেবারেই ভিন্ন। ২০২৩ সালের ২৯ ডিসেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকার মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, গাজা উপত্যকায় ইসরাইলের নৃশৃংস হত্যা গণহত্যার সমান। সেই মামলার প্রাথমিক রায়ে, আদালত ইসরাইলকে গণহত্যার প্ররোচনা প্রতিরোধ ও শাস্তি দেওয়ার এবং ২৬ ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রয়োজনীয় মানবিক সহায়তা প্রদানের নির্দেশ দেয়।

অন্যদিকে সোমবার শুরু হওয়া মামলাটি গাজায় ইসরাইল যে যুদ্ধ চালাচ্ছে তার সঙ্গে সরাসরি যুক্ত নয়। এটি গাজায় ইসরাইলের দখলদারিত্বের সঙ্গে সম্পৃক্ত।

আদালত কবে রায় দেবেন?

বিচারকরা বিস্তৃত উপস্থাপনা শুনবেন। পরে লিখিত মতামত প্রকাশ করবেন। তবে মতামত কখন প্রকাশ করা হবে তা স্পষ্ট নয়। আইন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মতামত চলতি বছর শেষ হওয়ার আগে রায় প্রকাশ করা হতে পারে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ