শিরোনাম
ঢাকা-১৮ আসনকে স্মার্ট আসন হিসেবে গড়তে কাজ করে যাচ্ছি: খসরু চৌধুরী এমপি ড.কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরবিক্রম এলডিপির কার্যালয়ে জনগণের উদ্যেশে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন দক্ষিণখানে রিকশাচালকদের মাঝে পানি বিতরণ করলেন খন্দকার সাজ্জাদ তীব্র তাপপ্রবাহে রিকশাচালকদের মাঝে পানি ও স্যালাইন বিতরণ ১০ দিনে তুরাগ থানার পরিবর্তনের ছোঁয়া কালীগঞ্জের নাগরিতে সন্ত্রাসীদের তান্ডব উত্তরায় প্রকৌশলীকে পিটিয়ে হত্যা, মূল হোতা নাজমুল ধরাছোঁয়ার বাইরে উত্তরায় বফেট লঞ্চের শুভ উদ্বোধন উত্তরা ৪৭ নং ওয়ার্ড এ খন্দকার সাজ্জাদ হোসেনের ঈদের নামাজ আদায় উত্তরখানে খসরু চৌধুরী এমপির ঈদ উপহার বিতরণ
রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১:৩২ পূর্বাহ্ন

এবার খতনার সময় শিশুর গোপনাঙ্গ কেটে ফেললেন ডাক্তার

রিপোটারের নাম / ১৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আল নাহিয়ান তাজবির (৮) নামে এক শিশুকে সুন্নতে খতনা করার সময় গোপনাঙ্গ কেটে ফেলেন চিকিৎসক। এ ঘটনায় দুই অভিযুক্তের মধ্যে উপসহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার বিজয় কুমারকে টেকনাফে বদলি করা হয়েছে। একইসঙ্গে শিশুটিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

ঘটনা তদন্তে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. মো. যোবায়েরকে প্রধান করে ও ডা. শাহাদাত হোসেন সাগরকে সদস্য করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী তিন দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

বুধবার দুপুরে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে এ ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই শিশুকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

এ ঘটনায় জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে অভিযুক্ত উপসহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার বিজয় কুমারকে কক্সবাজারের টেকনাফে বদলি করা হয়েছে। তবে ঘটনার পর থেকে এখনো পলাতক খতনা করা মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট (শিক্ষানবিশ) সৌরভ ভৌমিক।

শিশুটির বাবা আলমগীর হোসেন বাদল বলেন, ৮ বছরের শিশু আল নাহিয়ান তাজবিরকে নিয়ে বুধবার দুপুরে হাসপাতালে যান তিনিসহ তার পরিবারের লোকজন। হাসপাতালে জরুরি বিভাগে আসার সঙ্গে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইন্টার্নি করা সৌরভ ভৌমিক ও উপসহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার বিজয় কুমার নির্দিষ্ট চিকিৎসক আসার আগেই খতনার কাজ শুরু করেন। এ সময় সৌরভ তাজবির গোপনাঙ্গের কিছু অংশ কেটে ফেললে রক্তক্ষরণ শুরু হয়। এরপর দ্রুত জরুরি বিভাগ থেকে পালিয়ে যান সৌরভ ও বিজয়।

একাধিক সূত্র জানায়, যদিও প্রতিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একজন বিশেষজ্ঞ সার্জারি কনসালটেন্ট এ খতনা করার কথা। তবে হাসপাতালটিতে সার্জারি কনসালটেন্ট না থাকায় একজন চিকিৎসক খতনার কাজ করতেন।

শিশুটির পরিবারের অভিযোগ, দায়িত্বরত চিকিৎসকের অবহেলার কারণে সৌরভ ও বিজয় খতনা করতে গিয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি ভুক্তভোগীর পরিবারের।

হাসপাতালের আরএমও ডা. মোহাম্মদ যোবায়ের জানান, হাসপাতালের নিয়মের বাইরে গিয়ে সৌরভ ও বিজয় এমন কাজ করেছে। ইতোমধ্যে বিজয় কুমারকে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ মোতাবেক কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বদলি করা হয়েছে। আর ঘটনার পর থেকে পলাতক সৌরভ ভৌমিকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ