শিরোনাম
ঢাকা-১৮ আসনকে স্মার্ট আসন হিসেবে গড়তে কাজ করে যাচ্ছি: খসরু চৌধুরী এমপি ড.কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরবিক্রম এলডিপির কার্যালয়ে জনগণের উদ্যেশে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন দক্ষিণখানে রিকশাচালকদের মাঝে পানি বিতরণ করলেন খন্দকার সাজ্জাদ তীব্র তাপপ্রবাহে রিকশাচালকদের মাঝে পানি ও স্যালাইন বিতরণ ১০ দিনে তুরাগ থানার পরিবর্তনের ছোঁয়া কালীগঞ্জের নাগরিতে সন্ত্রাসীদের তান্ডব উত্তরায় প্রকৌশলীকে পিটিয়ে হত্যা, মূল হোতা নাজমুল ধরাছোঁয়ার বাইরে উত্তরায় বফেট লঞ্চের শুভ উদ্বোধন উত্তরা ৪৭ নং ওয়ার্ড এ খন্দকার সাজ্জাদ হোসেনের ঈদের নামাজ আদায় উত্তরখানে খসরু চৌধুরী এমপির ঈদ উপহার বিতরণ
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ১১:৫৫ অপরাহ্ন

আন্তর্জাতিক সাহসী নারী পুরস্কার পাচ্ছেন বাংলাদেশের ফওজিয়া করিম

রিপোটারের নাম / ১৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ২ মার্চ, ২০২৪

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী ফওজিয়া করিম ফিরোজ ২০২৪ সালের আন্তর্জাতিক সাহসী নারী (আইডব্লিউওসি) পুরস্কার পেতে যাচ্ছেন।

সোমবার হোয়াইট হাউজে অনুষ্ঠিতব্য বার্ষিক আইডব্লিউওসি পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে তাকে এ পুরস্কার প্রদান করা হবে। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্তনি ব্লিঙ্কেন এবং ফার্স্ট লেডি ঝিল বাইডেন অনুষ্ঠানটির আয়োজন করছেন। শুক্রবার স্থানীয় সময় মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আইডব্লিউওসি মনোনীত অন্যরা হলেন- আফগানিস্তানের বেনাফসা ইয়াকুবি, বেলারুশের ভোলহা হারবুনোভা, বসনিয়া-হারজেগোভিনার আজনা জুসিক, মায়ানমারের মাইন্টজু উইন, কিউবার মার্থা বিটরিজ রোক ক্যাবিলো, ইকুয়েডরের ফাতিমা কোরোজো, গাম্বিয়ার ফাতৌ বালডি, ইরানের ফারিবা বালৌচ, জাপানের রিনা গোনোই, মরোক্কোর রাবহা এল হাইমার ও উগান্ডার আগাথার এটিউহেয়ার।

ফওজিয়া করিম ফিরোজ একজন বাংলাদেশি আইনজীবী। যিনি তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে প্রান্তিক গোষ্ঠীর অধিকারের জন্য লড়াই করছেন। মিসেস ফিরোজ বর্তমানে তার নিজস্ব ল চেম্বারের প্রধান এবং ফাউন্ডেশন ফর ল অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের (এফএলএডি) চেয়ারপারসন হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার নেতৃত্বে এফএলএডি একটি রায়ে জিতেছিল। ২০১৫ সালের গৃহকর্মী সুরক্ষা ও কল্যাণ নীতি গৃহকর্মীদের অধিকার রক্ষার জন্য অপর্যাপ্ত ছিল।

মিসেস ফিরোজ ব্যক্তিগতভাবে গার্মেন্টস শ্রমিকদের পক্ষে তাদের নিয়োগকর্তাদের বিরুদ্ধে প্রায় ৩ হাজার মামলা করেছেন এবং বাংলাদেশ স্বাধীন গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স ইউনিয়ন ফেডারেশন (বিআইজিইউএফ) এবং গৃহকর্মী নির্দেশিকা প্রতিষ্ঠায় সহায়তা করেছেন।

এর আগে তিনি ২০০৭-২০১৮ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ মহিলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এসিড সারভাইভারস ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি আইনজীবী ফিরোজ। ২০২৩ সালের নভেম্বরে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট যৌন হয়রানির মামলা পর্যালোচনা এবং আদালতে তা সুপারিশ করার জন্য ফিরোজকে আদালতের পাঁচ সদস্যের কমিটিতে নির্বাচিত করে।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের আইডব্লিউওসি অ্যাওয়ার্ড বিশ্বজুড়ে সেই সব নারীদের স্বীকৃতি দেওয়া হয়। যারা শান্তি, ন্যায়বিচার, মানবাধিকার, লিঙ্গ সমতা ও সমতা এবং নারী ও মেয়েদের ক্ষমতায়নের পক্ষে পরামর্শ করার ক্ষেত্রে ব্যতিক্রমী সাহস, শক্তি এবং নেতৃত্ব প্রদর্শন করে থাকেন। আর তাদের সব কর্ম-বৈচিত্র্যের মধ্যে রয়েছে ব্যক্তিগত ঝুঁকি এবং আত্মত্যাগ। ২০০৭ সালের মার্চ থেকে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর ৯০টি দেশের ১৯০ জনেরও বেশি নারীকে আইডব্লিউওসি পুরস্কারের স্বীকৃতি দিয়েছিল। বিদেশে যুক্তরাষ্ট্রের কূটনৈতিক মিশনগুলো তাদের নিজ নিজ আয়োজক দেশ থেকে একজন সাহসী নারীকে মনোনীত করে। কূটনৈতিক মিশনের সিনিয়র কর্মকর্তারা প্রার্থী চূড়ান্ত ও অনুমোদন করেন। আইডব্লিউওসি অনুষ্ঠানের পর পুরস্কারপ্রাপ্তরা সশরীরে লস অ্যাঞ্জেলেসের ইন্টারন্যাশনাল ভিজিটর লিডারশিপ প্রোগ্রাম (আইভিএলপি) ও অন্যান্য কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করবেন। যেখানে তারা বিশ্বজুড়ে নারী ও মেয়েদের ক্ষমতায়নের লক্ষে আমেরিকান প্রতিপক্ষের সঙ্গে কৌশল ও ধারণার বিষয়ে সম্পৃক্ত হবেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ